স্বামী, স্ত্রী সন্তান, মা, শাশুড়ি এক পরিবারের নিহত

403

কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কে এক মর্মান্তিক দূর্ঘটনায় মঙ্গলবার নিহত হয়েছেন ৬ জন। তারা পরস্পর নিকট আত্মীয় এবং প্রায় একই পরিবারের। একটি সিএনজি অটোরিকশায় তারা রাজশাহী বাঘায় গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন। নিহতরা হলেন- মেজবাউল আলম মাসুম (৩৫), তার স্ত্রী রুনা বেগম (২৬), ছেলে ইব্রাহীম হোসেন রুজবী (৭ মাস), মা মাহমুদা বেগম (৫৪), শাশুড়ি গিনি বেগম (৫২) ও চাচাতো ভাই জালাল উদ্দিন (৪০)। একসাথে ছয় জনের মৃত্যুতে রীতিমতো শোকের মাতম চলছে সবেরহাট গ্রামে।

স্বজনরা জানান,রাজশাহীর বাঘা উপজেলার সরেরহাট গ্রামের বাসিন্দা মেজবাউল আলম মাসুম। তার বোন মাহমুদা আক্তার জেমমিনের বিয়ে আগামী শুক্রবার। সাত মাসের শিশু ইব্রাহীম হোসেন রুজদীকে নিয়ে মাসুমের স্ত্রী রুনা বেগম অবস্থান করছিলেন ঝিনাইদহে মায়ের বাড়িতে। বিয়ের দাওয়াত দেয়া ও স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে আসার জন্য মাসুম ঝিনাইদহে যান।

সাথে নিয়ে যান মা মাহমুদা বেগমকে। আর যাতায়াতের জন্য যে সিএনজি অটোরিকশা নেন সেটির চালক প্রতিবেশি চাচাতো ভাই জালাল উদ্দিন। মঙ্গলবার দুপুরের খাবার শেষে মাসুম তার স্ত্রী,সন্তান, মা ও শাশুড়ীকে নিয়ে রওনা হন নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে। পথিমধ্যে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কের ভেড়মারা পাওয়ারহাউজ যাত্রী ছাউনির সামনে দূর্ঘটনার শিকার হন।বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাদের সিএনজিকে চাপা দেয়।এতে চালকসহ প্রত্যেক যাত্রী মারাত্মক জখম হন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঘটনাস্থলেই সিএনজি চালক জালাল উদ্দিন ও রুনা বেগম মারা যান। মেজবাউল আলম মাসুম, সাত মাস বয়সী ছেলে ইব্রাহীম হোসেন রুজবী, মা মাহমুদা বেগম ও শাশুড়ি গিনি বেগমকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুম ও তার শিশু রুজবীকে মৃত ঘোষণা করেন। দ্রুত কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় মাহমুদা বেগম ও গিনি বেগমকে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

ভেড়ামারা থানার এসআই আসাদ জানান,ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।মর্মান্তিক এ দূর্ঘটনার সংবাদে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার সরেরহাট গ্রামে কান্নার রোল পড়েছে। লাশগুলো বাড়ি পৌছেনি, তবে স্বজনদের ভীড় ঘরে বাইরে। গ্রামের হাজার হাজার মানুষ শোকার্ত মনে অপেক্ষায় রয়েছেন লাশের জন্য।