মন্ত্রীত্ব গেলে সাংবাদিকতা করবো- ওবায়দুল কাদের

132

স্টাফ রিপোর্টার: মন্ত্রীত্ব ছাড়ার পর আবারও সাংবাদিকতা পেশায় ফিরে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘ ২৮ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার জন্মদিন’ উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত আলোচনা সভা, কোরান তেলাওয়াত, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শেখ হাসিনার জন্মদিন পালনের উদ্দেশ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কাছে ভিন্ন প্রসঙ্গে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন উপস্থিত সাংবাদিকরা। দুদিন আগে আদালতের নির্দেশে ছাত্রদলের সম্মেলন বন্ধ হওয়ার পেছনে আওয়ামী লীগের যোগসূত্রতা আছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তার অবস্থান জানতে চাওয়া হলে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে প্রসঙ্গ ঘোরানোর অভিযোগ তোলেন কাদের।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা সাংবাদিকতা করেন, আমিও আপনাদের অগ্রজ। আপনারা আজকের এমন একটি সুন্দর অনুষ্ঠানকে পত্রিকার শিরোনাম রাজনৈতিক করার জন্য ভিন্ন দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। আপনারা প্রাসঙ্গিক না কেন? আজকের যেই অনুষ্ঠানে এসেছি তাকে ভিন্ন দিকে নিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। মন্ত্রিত্ব গেলে আমি আবার সাংবাদিকতায় আসবো।’

এরপর বিএনপি মহাসচিবের অভিযোগের উত্তর দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ছাত্রদলের নেতাদের মামলার কারণে তাদের কাউন্সিল বন্ধ হলো। তারাই তাদের বিরুদ্ধে মামলা করলো, মামলা করে সম্মেলন বন্ধ করে দেওয়া হলো। এখানেও নন্দঘোষ-শেখ হাসিনার যতো দোষ, এখানেও নন্দ ঘোষ আওয়ামী লীগের দোষ। নিজেরা নিজেদের বিরুদ্ধে মামলা করে সম্মেলন পণ্ড করেছে। এখানে আওয়ামী লীগ বা সরকারের দোষ কী?’

উল্লেখ্য, রাজনীতির পাশাপাশি সাংবাদিকতা ও লেখালেখিতেও সুনাম অর্জন করেছেন ওবায়দুল কাদের। বন্ধ হয়ে যাওয়া বাংলার বাণী পত্রিকায় দীর্ঘদিন সহকারী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এছাড়া কলাম লেখক হিসেবেও তার বিশেষ খ্যাতি আছে। বর্তমান মন্ত্রিসভায় জায়গা পাওয়ার আগেও বিভিন্ন দৈনিক ও ম্যাগাজিনে নিয়মিত কলাম লিখতেন তিনি।