আমরা তো এখনও ছোট মানুষ, ভুল শোধরাতে চাই : শোভন

377

ঢাকা: আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসন্তোষকে যৌক্তিক ও সঠিক মেনে নিয়ে নিজেদের শুধরে নিতে সময় চেয়েছেন ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা। দু’জনই বলছেন, ছাত্রলীগের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার যেকোন সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত ও শিরোধার্য।
গণভবনে মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতার নানা কর্মকাণ্ড নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতির বিরক্তি প্রকাশের খবরে নিজেদের ব্যর্থতার কথা স্বীকার করে ভুল শোধরানোর কথা বলছেন তারা।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘সন্তানকে দিক নির্দেশনা দেয়ার জন্য তিনি শাসন করবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু, এটা নিয়ে অনেকের অতি উৎসাহিত হওয়ার কিছু নেই। সেটা হবে আমাদের উৎসাহ। আমরা তো এখনও ছোট মানুষ, আমাদের যে ভুলত্রুটিগুলো আছে, সেগুলো যেন আমরা শুধরে দলটাকে আরো সুন্দর করে চালাতে পারি, সেটাই হয়তোবা তিনি চিন্তা করছেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘নেত্রী আমাদের মা, অবশ্যই আমাদের ত্রুটি বিচ্যুতিগুলো স্বীকার করে নিয়ে এই অনুতাপবোধ থেকে তার কাছে আমরা ক্ষমা চেয়ে একেবারে বলবো যে, আমরা আরো ভালও করে কাজ করতে চাই। তিনি কষ্ট পেয়েছেন এটা আমরা নির্দ্বিধায় বুঝতে পারছি।’

ব্যর্থতা ছাড়াও আলোচনায় উঠে আসে দুই ছাত্রনেতার নানান অনিয়মের কথাও। ছাত্রলীগ সভাপতি আরো বলেন, ‘কিছু ভুলত্রুটি হয়। নেত্রী আমাদের কমিটি দিয়েছেন। নেত্রী যখন ইচ্ছা তখন ভেঙ্গে দিয়ে নতুন করে কমিটি দিবেন। এখানে আসলে আমাদের বলার কিছু নাই। নেত্রী যা করবেন সেটাই ঠিক।’

গোলাম রাব্বানী আরো জানান, ‘তিনি অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এখন এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ, সবাইকে একসঙ্গে থেকে ছাত্রলীগের অভিন্ন পরিবারকে একত্রে থেকে শেখ হাসিনার যে প্রত্যাশার ছাত্রলীগ তা গড়ার জন্য এই চ্যালেঞ্জটা নিতে হবে।কয়েক বছরের প্রথা ভেঙ্গে গেলো বছর শোভনকে সভাপতি ও রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয় ঐতিহ্যবাহী এই ছাত্র সংগঠনটির।